ট্যাংরায় বিজেপি নেতাকে মারধর, বাঁচাতে গিয়ে আক্রান্ত পরিবার

সপ্তাহ ঘুরতে না ঘুরতেই ফের ট্যাংরায় আক্রান্ত বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। বাড়ির সামনেই এক বিজেপি নেতা ও তাঁর পরিবারকে বেধড়ক মারধর করা হয়।  অভিযোগ উঠছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত ট্যাংরার মথুরবাবু লেন এলাকা। গুরুতর জখম মহিলা ও নাবালক-নাবালিকা সহ বেশ কয়েকজন। আহত বিজেপি নেতা এনআরএস হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। যদিও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসকদল। 

মঙ্গলবার সন্ধ্যে নাগাদ ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডে মথুরবাবু লেনে বিজেপির একটি কম্বল বিতরণ কর্মসূচি ছিল। বিজেপির অভিযোগ, সেই কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করার অপরাধে রাত সাড়ে দশটা নাগাদ বাড়ির সামনেই বিজেপি বুথ সভাপতি বাপি দে'র সঙ্গে বচসা শুরু হয় স্থানীয় তৃণমূল কর্মীদের। সেই সময় প্রায় ৩০-৪০ জন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী তাঁর ওপর হামলা চালায়। তাঁকে বাঁচাতে এলে তাঁর স্ত্রী, শাশুড়ি এবং নাবালক পুত্র-কন্যাকেও বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

আক্রান্তদের দাবি, বিজেপি কর্মী হওয়ার কারণেই হামলা চালিয়েছে তৃণমূল। গুরুতর আহত অবস্থায় আহতদের এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে যান বাসিন্দারা।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে ৬ জানুয়ারি একই এলাকায় তৃণমূলের হাতে বিজেপির এক নেতা আক্রান্ত হয়েছিলেন বলে অভিযোগ করেছিল বিজেপি। ফের মঙ্গলবার রাতে বিজেপি নেতার পরিবারের ওপর হামলা। বিজেপির দাবি, এই ব্যাপারে ট্যাংরা থানার পুলিশ কোনও সদর্থক ভূমিকা নিচ্ছে না। তবে এই বিষয়ে তৃণমূলের কোনও  প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। ঘটনা ঘিরে রাজনৈতিক চাপানউতোর রয়েছে এলাকায়।      

 

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.