বাংলাদেশে পাচারের আগেই উদ্ধার ৬৫০ টিয়া, জালে ২ পাণ্ডা

বড়সড় সাফল্য পেল দুর্গাপুর বনদফতর। ভেস্তে গেল বাংলাদেশে বিরল টিয়া পাখি পাচারের পরিকল্পনা। পাকড়াও আন্তরাজ্য বন্যপ্রাণী পাচার চক্রের মূল দুই পান্ডা। শনিবার ভোররাতে কাঁকসার বাঁশকোপা টোল প্লাজার সামনে দুজনকে গ্রেফতার করেন বন আধিকারিকরা। উদ্ধার হয়েছে বিরল প্রজাতির প্রায় সাড়ে ছয়শো টিয়া পাখি।

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে, শনিবার ভোররাতে দক্ষিণ পূর্ব চক্রের মুখ্য বনপাল কল্যাণ দাসের নেতৃত্বে বন আধিকারিকরা বাঁশকোপা টোল প্লাজার কাছে ওঁত পেতে ছিলেন। কিছু পরে বিহার-কলকাতা রুটের একটি লাক্সারি বাস অাসলে সেটি আটকে তল্লাশি শুরু করেন। এরপরই বাসের লাগেজ বাঙ্কার থেকে এই বিরল প্রজাতির টিয়া পাখিগুলিকে উদ্ধার করেন বনকর্মীরা। ঘটনাস্থল থেকে মহম্মদ গুড্ডু ও পিন্টু নামে দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া গ্রেফতার করা হয়েছে বাসের চালক ও সহ চালককে। বাসটিকেও হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

দক্ষিনপূর্ব চক্রের মুখ্য বনপাল কল্যাণ দাস জানিয়েছেন, শুধু আন্তঃরাজ্য নয়, এই টিয়াপাখি গুলি বাংলাদেশেও পাচার হয়ে যেত এই অপরাধীদের হাত ধরে। যাতে কেউ বুঝতে না পারে তার জন্য টিয়া পাখিগুলির মুখে কাপড় বেঁধে পাচার করা হচ্ছিল। তবে এই চক্রের সঙ্গে আরও বড় কোনও মাথা জড়িয়ে রয়েছে বলেই অনুমান। দুই দুষ্কৃতীকে জেরা করে গোটা ৱ্যাকেটকে ধরার চেষ্টা চলছে।


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.