হরিদ্বারে কুম্ভমেলায় যেতে বাধ্যতামূলক করোনা রিপোর্ট

করোনার প্রকোপ এখনও কমেনি। যদিও ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ ইতিমধ্যেই অনেকটা এগিয়েছে। এই পরিস্থিতিতেই আগামী ১ এপ্রিল থেকে হরিদ্বারে শুরু হচ্ছে কুম্ভমেলা। আর করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে উত্তরাখণ্ড সরকার কুম্ভমেলায় যাওয়া প্রত্যেক তীর্থযাত্রীদের করোনা রিপোর্ট বাধ্যতামূলক করল। চলতি বছর হরিদ্বারে কুম্ভমেলা শুরু হবে ১ এপ্রিল থেকে, চলবে পুরো মাস জুড়ে। এই সময়ের মধ্যে তিনটি শাহি স্নানের দিন রয়েছে। প্রথম শাহি স্নান হবে সোমবতী অমাবস্যার দিন অর্থাৎ ১২ এপ্রিল। এরপর পয়লা বৈশাখ ১৪ এপ্রিল এবং তৃতীয়টি ২৭ এপ্রিল পূর্ণিমার দিন। প্রতি ১২ বছর অন্তর একেকটি জায়গায় হয় কুম্ভমেলা। ভারতে মোট চারটি তীর্থক্ষেত্রে কুম্ভমেলা হয়, হরিদ্বার ছাড়াও উজ্জয়নী, নাসিক এবং প্রয়াগে কুম্ভ হয়। উত্তরাখণ্ড সরকার ইতিমধ্যেই চুরান্ত প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। করোনা অতিমারীর জন্য এবছর করোনা রিপোর্ট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। যা অনলাইনে রেজিস্ট্রেশনের পর মেলায় ঢোকার ৭২ ঘন্টা আগে আপলোড করতে হবে তীর্থযাত্রীকে। পুঙ্খানুপুঙ্খ জানিয়ে খুব শীঘ্রই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবে উত্তরাখণ্ড সরকার। 

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.