‘এটা গুজরাতে হলে এতক্ষণে গোধরা হয়ে যেত’, বিতর্কিত মন্তব্য মদন মিত্রের

নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আহত হওয়ার ঘটনায় তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। সেই সঙ্গে রাজ্য জুড়েই চলছে দফায় দফায় বিক্ষোভ অবরোধ। এই পরিস্থিতিতে ফের বিতর্কিত মন্তব্য করলেন প্রাক্তন মন্ত্রী তথা কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র। তিনি যেমন দাবি করলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খুনের চেষ্টা হয়েছিল, তেমনই দাবি করলেন, এই ঘটনা গুজরাতে হলে এতক্ষণে আরও একটা গোধরা কাণ্ড হয়ে যেত। উল্লেখ্য, বুধবারই আঘাত পাওয়ার পর গোটা ঘটনার পিছনে চক্রান্তের অভিযোগ করেছিলেন আহত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

 বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনে গিয়েও চক্রান্তের অভিযোগ জানিয়ে এসেছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। অপরদিকে নন্দীগ্রামের তৃণমূল নেতা শেখ সুফিয়ানও নন্দীগ্রাম থানায় এই মর্মে এফআইআর দায়ের করেন। সবমিলিয়ে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগে উত্তাল বঙ্গ রাজনীতি। এই পরিস্থিতিতে বোমা ফাটালেন কামারহাটির তৃণমূল প্রার্খী মদন মিত্র। তাঁর দাবি, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খুনের চেষ্টা হয়েছিল। এর থেকেও  তাঁর কথায়, ‘ঘটনার পূর্বাভাস ছিলই। বিজেপি সাংসদদের বক্তব্যে পরিষ্কার ছিল যে, তাঁর উপর আক্রমণ করা হতে পারে। ডিজি বদলের পরই মমতার উপরে হামলা। এক থেকেই প্রমাণিত পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করছে নির্বাচন কমিশন। ২ তারিখ বাংলা এর জবাব দেবে’। 

এখানেই শেষ নয়, মদন মিত্র মোদি-অমিত শাহকে নিশানা করে বিস্ফোরক দাবি করেন, ‘এই ঘটনা গুজরাতে হলে এতক্ষণ আরেকটা গোধরা হয়ে যেত’। তিনি আরও অভিযোগ এনেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে প্রার্থী হওয়ার পর সরানো হল রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্রকে। অপরদিকে, সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া বর্ষীয়ান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি মদন মিত্র। তিনি বলেন, ‘এখন কোবরা দেখানো হচ্ছে আমাদের, আর দুই তারিখে আমরা দেখাব কোবরা ডান্স’। তবে তিনি এও জানিয়ে দিয়েছেন,  মিঠুন চক্রবর্তী তাঁরও প্রিয় অভিনেতা। এদিন মদন মিত্র কামারহাটিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর হামলার প্রতিবাদে একটি মিছিল করেন।


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.