দল ছাড়লেন শোভন ও বৈশাখী

দলীয় প্রার্থী এবং টিকিট নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিলেন বিজেপির কলকাতা জোনের পর্যবেক্ষক শোভন চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বান্ধবীও একই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি আবার বিজেপির কলকাতা জোনের সহ আহ্বায়ক পদে রয়েছেন। সবমিলিয়ে তৃতীয় ও চতুর্থ দফার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হতেই জোড়দার ধাক্কা খেতে হচ্ছে বিজেপিকে। সূত্রের খবর, বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে চিঠি দিয়ে দলের সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করতে চাইলেন শোভন-বৈশাখী। তবে ফেসবুকে নিজের ক্ষোভ জানিয়ে দল ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘ষড়যন্ত্রকারীরা সফল হবে না। আমরাই জিতবো। বেহালা পূর্বের মানুষের আশীর্বাদ আমাদের সঙ্গে রয়েছে’। 

 


উল্লেখ্য, বেহালা পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের বিদায়ী বিধায়ক শোভন চট্টোপাধ্যায়। অথচ তাঁকে টিকিট না দিয়ে সেখানে প্রার্থী করা হয়েছে অভিনেত্রী পায়েল সরকারকে। এটাই মেনে নিতে পারেননি কলকাতা জোনে বিজেপির পর্যবেক্ষক শোভনবাবু। তিনি এই কেন্দ্র থেকেই ভোটে লড়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু তাঁর ইচ্ছার গুরুত্ব দেওয়া হয়নি বলেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। উল্লেখ্য, বেহালা পূর্ব কেন্দ্রে ইতিমধ্যেই তাঁর স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায়কে টিকিট দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই কেন্দ্র থেকে বিজেপির টিকিটে দাঁড়িয়ে রেকর্ড ভোটে রত্নাকে হারানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। তবে শেষ পর্যন্ত টিকিটই পেলেন না তিনি।  সব শেষে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেন শোভন। সূত্র মারফৎ জানা যাচ্ছে দলের সমস্ত পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে চিঠি দিয়েছেন দিলীপ ঘোষ, অরবিন্দ মেননকে।
 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.