‘এবার স্মাইলি ফাইট’, হেসে বললেন মমতা

শুক্রবার ২৯৪ আসনের ৩টি গোর্খা জনমুক্তি মোর্চাকে ছেড়ে বাকি ২৯১ আসন ঘোষণা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন খুবই হালকা মেজাজে ছিলেন তৃণমূল নেত্রী। সাংবাদিকদের প্রতিটি প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন হাসি মুখেই। ব্যতিক্রম আব্বাস সিদ্দিকীর বিষয়ের প্রশ্নে।  এড়িয়ে গিয়েছেন সেই প্রশ্ন। বাকি বেশ আত্মবিশ্বাসের সঙ্গেই কে বাদ গিয়েছেন কেন গিয়েছেন, তার উত্তর দিয়েছেন স্বভাবসুলভ ভঙ্গিমায়। আবদার বা এলাকা বদলের অনুরোধকে আমলই দেননি তিনি বরং যারা টিকিট পান নি, তাদের সময়ের সাথে চলতে বলেছেন। অনায়াসেই ছেঁটে ফেলেছেন প্রবীণ অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়কে এবং তরুণ নায়ক নায়িকাদের সুযোগ দিয়েছেন।


সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল, এবারের ভোট কি খুব টাফ ভোট? দিদিসুলভ হাসি হেসে উত্তর দিলেন, একদমই না বরং স্মাইলি ভোট। আমি তো হাসি মুখে আছি সবাই হাসুন। পাশাপাশি বললেন, ২১ আমার লাকি সংখ্যা, ২ তারিখ ফল বেরোনোর পরও আমি হাসবো। নন্দীগ্রামে তাঁর জেতা প্রসঙ্গে হেসেই উত্তর দিলেন, ‘খেলেঙ্গে, লড়েঙ্গে, জিতেঙ্গে’। অবাঙালি ভোটও তাঁর দিকেই থাকবে এটাও দাবি করলেন। আবার শরদ পওয়ার, উদ্ধব ঠাকরে, তেজস্বী যাদব, অখিলেশ যাদব, হেমন্ত সোরেনের মতো নেতাদের সমর্থন পেয়ে অভিভূত সেটাও জানাতে ভুললেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তবে উঠতি যুবমুখ দেবাংশু ভট্টাচার্য্য টিকিট পেলেন না। কারণ হিসাবে এক তৃণমূল নেতা জানালেন, বেশ জমজমাট কথা বলে কিন্তু এখনও ভোট লড়ার অভিজ্ঞতা হয়নি। লড়াই করুক বিরাট জীবন তো পরে আছে।             

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.