অমানবিক! এসএসকেএমের বাইরে ১০ দিন স্ট্রেচারেই পড়ে রোগী

অমানবিক! ১০ দিন ধরে স্ট্রেচারেই পড়ে সঙ্কটজনক রোগী। বারবার হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে আবেদন করলেও মেলেনি বেড। খাস কলকাতার বুকে সরকারি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালেই দেখা গেল এই দৃশ্য। ঘটনাস্থল এসএসকেএম হাসপাতাল। অবশেষে সিএনে খবরটি সম্প্রচারিত হওয়ার পরই নড়েচড়ে বসে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শেষপর্যন্ত তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই ঘটনায় ফের প্রকাশ্যে রাজ্যের স্বাস্থ্যব্যবস্থার কঙ্কালসার চেহারা।  

অভিযোগ, রোগীর অবস্থা সঙ্কটজনক হওয়ায় এসএসকেএমের এমার্জেন্সি বিভাগ থেকেই অবিলম্বে তাঁকে ভর্তি করার জন্য লিখে দেন চিকিৎসকরা। কিন্তু বেড না থাকায় হাসপাতালের বাইরে প্রতীক্ষালয়েই কার্যত বিনা চিকিৎসায় পড়ে ছিলেন বীরভূমের বাসিন্দা দিলীপকুমার ঘোষ। 

পরিবারের সদস্যরা জানান, ৬১ বছরের দিলীপকুমার ঘোষ ময়ুরাক্ষী গ্রামীণ কলেজের কর্মী ছিলেন। এক বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হন তিনি। ২ বছর আগে কলকাতার ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে তাঁর অস্ত্রোপচারও করা হয়। কিন্তু তারপরেও তাঁর মাথা থেকে ক্রমাগত রক্তক্ষরণ হত। এমনকী দিলীপবাবুর ডান দিকে প্যারালিসিসও হয়ে যায়। এরপরই তাঁকে নিয়ে আসা হয় এসএসকেএমে। 

পরিবারের অভিযোগ, এমার্জেন্সি বিভাগ থেকে প্রেসক্রিপশনে জরুরি ভিত্তিতে ভর্তি করার কথা লেখা হলেও কোনও সুরাহা হয়নি। মুমূর্ষু রোগীকে নিয়ে টানা ১০ দিন ধরে হাসপাতালের প্রতীক্ষালয়েই অপেক্ষা করছেন তাঁরা। বেড না থাকায় স্ট্রেচারেই অজ্ঞান অবস্থায় পড়ে রয়েছেন তিনি। রীতিমতো হয়রানির মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন পরিজনরা। তাঁদের দাবি, পরে আসা রোগীরাও বেড পেয়ে ভর্তি হয়ে গেলেও তাঁদের জন্য কোনও ব্যবস্থাই নেননি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। স্বাস্থ্যব্যবস্থার বেহাল দশা দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন রোগীর পরিবার। তবে শেষপর্যন্ত তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি নেওয়ায় আপাতত স্বস্তিতে তাঁর স্ত্রী ও ভাই।  


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.