ট্র্যাক্টর মিছিল বানচালে পাক টুইটারের চক্রান্ত, দাবি দিল্লি পুলিশের

প্রজাতন্ত্র দিবসের মিছিলে যোগ দিতে দিল্লির দিকে রওনা দিয়েছে হাজার হাজার ট্র্যাক্টর। পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও আশপাশের রাজ্যগুলি থেকে তারা যাচ্ছে দিল্লি সীমান্তের দিকে। পুলিশ জানিয়ে দিয়েছে, রাজপথে সরকারি কুচকাওয়াজ শেষ হওয়ার পরই কৃষকরা তাঁদের মিছিল করতে পারবেন। কৃষকরা এই মিছিলের নাম দিয়েছেন কিষাণ গণতন্ত্র প্যারেড। এরইমধ্যে দিল্লি পুলিশ দাবি করেছে, এই ট্র্যাক্টর মিছিলকে বানচাল করতে পাকিস্তানে তিনশো আটটি টুইটার হ্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছে। কৃষকদের মিছিল নিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে ১৩ থেকে ১৮ জানুয়ারির মধ্যে এই টুইটার হ্যান্ডেলগুলি বানানো হয়েছে।

দিল্লির পুলিশ কমিশনার এস এন শ্রীবাস্তব সব কেন্দ্রীয় বাহিনীকে যে কোনও সম্ভাবনার জন্য ২৬ জানুয়ারি তৈরি থাকতে বলেছেন। ট্র্যাক্টর মিছিল সামলাতে মোতায়েন করা হচ্ছে প্রচুর পুলিশকর্মী। দিল্লির বাইরে এই মিছিল করার জন্য দিল্লি পুলিশের অনুরোধ মানেননি কৃষক নেতারা। দিল্লির মধ্যেই আউটার রিং রোডে এই মিছিল হবে। শুক্রবার মিছিলের রুট চূড়ান্ত হয়েছে। দিল্লির সীমান্তের সিংঘু, গাজিপুর ও টিকরি এই তিনটি জায়গা থেকে মিছিল শুরু হবে। তিনটি রুটে ১৭০ কিলোমিটার যাবে এই মিছিল। তার আগে সরিয়ে নেওয়া হবে সব ব্যারিকেড। দিল্লি পুবিশের আশা, কৃষকরা দিল্লিতে ঢুকে সেখানেই থেকে যাবেন না। ফিরে যাবেন সীমান্তে।


Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.