আস্থাভোটের আগেই পতন পুদুচেরির কংগ্রেস সরকারের

আশঙ্কা ছিলই, এবার সেটাই সত্যি হল। নির্বাচনের মুখে দাঁড়িয়ে পতন হল পুদুচেরির কংগ্রেস সরকারের। রবিবারই দুই বিধায়ক ইস্তফা দেওয়ায় সংখ্যালঘু হয়ে পড়েছিল পুদুচেরির শাসকদল। এদিন আস্থা ভোটের আগেই শাসক গোষ্ঠীর বিধায়করা ওয়াক আউট করেন। এরপর বিধানসভার স্পিকার ঘোষণা করেন যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়েছে কংগ্রেস সরকার। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ডিএমকে-র তিন বিধায়ক এবং এক নির্দল বিধায়কের সমর্থনে সরকার গড়েছিলেন কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী ভি নারায়ণস্বামী। রবিবার বিধানসভার পুদুচেরি বিধানসভার অধ্যক্ষ ভি পি শিবাকোলুন্ধুর বাসভবনে গিয়ে ইস্তফাপত্র জমা দেন বিধায়ক কে লক্ষ্মীনারায়ণ। এরপরই ডিএমকে বিধায়ক কে ভেঙ্কটেশনও ইস্তফা দেন। ফলে সরকার পক্ষের থেকে বিরোধীদের বিধায়ক সংখ্যা বেশি হয়ে যায় পুদুচেরি বিধানসভা। জানা যাচ্ছে, কংগ্রেস সরকারের বিধায়ক সংখ্যা এখন মাত্র ১২, অপরদিকে বিরোধীদের দিকে হয়ে গেলেন ১৪ জন। ফলে সোমবার আস্থাভোট হলে পতন অনিবার্য ছিল। তাই নির্বাচনের আগেই সরকারের পতন হল মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের পর। এপ্রিল-মে মাসে চার রাজ্যের ভোটের সঙ্গে পুদুচেরিতেও নির্বাচন হবে। তাই এই কম সময়ের মধ্যে পুদুচেরিতে কোনও পক্ষ সরাকার গঠন করে কিনা সেটাই দেখার। 

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.