২৪-এ পা সিটিভিএন-এর


ষোল আনাই বাঙালিয়ানা স্লোগান নিয়ে এক বাঙালি উদ্যোগপতি খুলেছিলেন একটি বাংলা চ্যানেল সিটিভিএন একেডি। ৯০ দশকের শেষে চ্যানেল খোলার ইচ্ছা বা সাহস এ রাজ্যে কারও ছিল না। কারণ বাজারে তখন সরকারি প্রচারমাধ্যম এবং সাথে সর্বভারতীয় বিনোদন চ্যানেল তার সাথে মানুষের বাড়িতে ভিসিআর, যেখানে ক্যাসেট সেট করলেই টাটকা হিন্দি ছবি। ছোট্ট একটি ফ্ল্যাটবাড়িতে চলা শুরু তাও কেবলের মাধ্যমে। ছিল বাংলা গান, উত্তমকুমারের বাংলা ছবি, টলিউড থেকে বিভিন্ন মহলের সেলেবদের সাক্ষাৎকার। প্রথমে একঘন্টা, তারপর ৮ ঘন্টা এবং অবশেষে ২৪ ঘন্টার বাংলা অনুষ্ঠান।

একটা সময়ে শুরু হল বাংলা খবর, রাজনৈতিক অনুষ্ঠানও। প্রয়াত প্রণব মুখোপাধ্যায় থেকে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য কিংবা স্টুডিওর বাইরে ভোটবাজার ধরতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে সুভাষ চক্রবর্তী থেকে কে নয়! ২০০৫-৬ সালে স্যাটেলাইটে এল সিটিভিএন একেডি প্লাস। শিক্ষা, ব্যবসা,রাজনীতি ইত্যাদি থেকে দূরাভাষে বাণিজ্য। টেলিভশন জগতে সিটিভিএনই প্রথম লাইভ ফোন অনুষ্ঠান শুরু করে। দর্শকরা ফোন করে কেনাকাটা থেকে শিক্ষাগ্রহণ  সবই চলতে থাকে সিটিভিএন একেডিতে। তারপর একে একে নতুন চ্যানেলের হাত ধরেই চলে এল টিভি বিশ্বে। উত্তরবাংলা, ক্যালকাটা নিউজ বা সিএন। আগামীতে আসছে সিএন রাষ্ট্রীয়। ভরা সংসার আজ একেডি গ্রূপের। আজ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২৩ পূর্ণ করে ২৪-এ পা দিল ষোলোআনাই বাঙালিয়ানা সিটিভিএন একেডি।        


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.