জেপি নাড্ডার সফরের আগেই ফের বোমাবাজি ভাটপাড়ায়

বৃহস্পতিবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সফর রয়েছে ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে। ব্যারাকপুরের ঘোষপাড়ায় বিজেপির পরিবর্তন যাত্রার সূচনা করার কথা জেপি নাড্ডার। পাশাপাশি তিনি নৈহাটিতে সাহিত্যসম্রাট বঙ্কিমচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বাসভবনে গিয়ে তাঁকে শ্রদ্ধা জানাবেন। এর আগেই ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল ভাটপাড়া। এই পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর খুসবু নিসার বাড়ির সামনে বল বোমাবাজি। পাশাপাশি যে রাস্তা দিয়ে পরিবর্তন রথযাত্রা যাওয়ার কথা সেই ঘোষপাড়া রোডেও ব্যপক বোমাবাজি হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। অভিযোগের তির শাসকদলের দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধেই। যদিও তৃণমূলের পাল্টা দাবি, তাঁদের পার্টি অফিসেও বোমা ছোড়া হয়েছে। গোটা ঘটনায় তিন-চারজন আহত হয়েছেন বলেই সূত্রের খবর। 

ব্যারাকপুরের বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং দাবি করেছেন, পুলিশ এবং তৃণমূল যৌথভাবে ভাটপাড়া অশান্ত করার চেষ্টা করছে। বৃহস্পতিবার ভাটপাড়ার পাওয়ার হাউস মোড় দিয়ে বিজেপির ‘পরিবর্তন যাত্রা’ তথা রথযাত্রা যাওয়ার কথা আছে। এই কর্মসূচির জন্য বুধবার রাত থেকেই স্থানীয় বিজেপি কর্মীরা ২২ নম্বর ওয়ার্ড অফিসে ব্যানার-পোস্টার লাগানোর কাজ করছিলেন। তখনই পরপর বোমা ছোড়া হয়। এমনকি বিদায়ী কাউন্সিলরের খুসবু নিশার বাড়ির সামনেও বোমা ফেলে দুষ্কৃতীরা। দুজন আহত বিজেপি কর্মীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। একজনকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হলেও অপরজনকে ব্যারাকপুরের এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপরদিকে তৃণমূলের অভিযোগ, তাঁদের পার্টি অফিসের সামনেও বোমা ছোড়া হয়েছে। এক তৃণমূল কর্মীকে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে। ফলে জেপি নাড্ডার সফরের আগেই বোমাবাজি, অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল ভাটপাড়া এলাকা। 


অপরদিকে আদালতের অনুমতি থাকা সত্ত্বেও ব্যারাকপুরের পুলিশ কমিশনারের তরফ থেকে এই ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে পরিবর্তন রথযাত্রা বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে দাবি বিজেপির। ব্যারাকপুরের সংসদ তথা রাজ্য বিজেপি সহ সভাপতি অর্জুন সিং দাবি করেছেন, যদি পুলিশ পরিবর্তন যাত্রায় বাধা দেয় তবে তিনি ফের আদালতের দ্বারস্থ হবেন। নৈহাটি এলাকার বিজেপি নেতাদের অভিযোগ, জেপি নাড্ডা বঙ্কিমচন্দ্রের বাড়িতে আসার আগেই তৃণমূল কংগ্রেস নৈহাটির বঙ্কিম ভবনের আশেপাশে তৃণমূলের পতাকা ও ব্যানারে ভরিয়ে দেয়। এটা রাজনৈতিক শিষ্টাচারের অভাব বলেই মনে করছেন বিজেপি নেতৃত্ব। অন্যদিকে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতিকে স্বাগত জানানোর জন্যই তৃণমূল এই কাজ করছে বলে কটাক্ষ করলেন ব্যারাকপুর সাংসদ অর্জুন সিং।


Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.