কয়লা পাচারকাণ্ডে শুক্রবার রাজ্যজুড়ে সর্ববৃহৎ তল্লাশি অভিযানে সিবিআই-ইডি

আজই বিধানসভা নির্বাচনের নির্ঘন্ট প্রকাশ করতে পারে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। এর প্রাক্কালে শুক্রবারই রাজ্যজুড়ে বড়সড় অভিযানে নামলো দুটি কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। যৌথভাবেই সিবিআই এবং এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট (ইডি) রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সর্ববৃহৎ অভিযান শুরু করেছে। মোট ১৬টি দলে ভাগ হয়ে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে সিবিআই এবং ইডির আধিকারিকরা। তাঁদের নিরাপত্তায় মোতায়েন রয়েছে ৮০ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান। একযোগেই অভিযান চলছে কলকাতা, আসানসোল, বর্ধমান, দুর্গাপুরের কয়েকটি এলাকায়। 

 

জানা যাচ্ছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দাদের নজরে দুর্গাপুরের একাধিক শপিং মল রয়েছে। মূলত কয়লা পাচারে মূল অভিযুক্ত অনুপ মাঝি ওরফে লালার ঘনিষ্ঠ ব্যবসায়ীরা রয়েছেন তালিকায়। তেমনই ওই সমস্ত এলাকার কয়েকজন ব্যবসায়ীদের বাড়িতেও চলছে তল্লাশি অভিযান। সূত্রের খবর, তাৎপর্যপূর্ণভাবে গোটা অভিযানের নেতৃত্বে রয়েছেন দিল্লি থেকে আসা আধিকারিকরা। কলকাতার বড়বাজার, ধর্মতলা, চাঁদনি চক, এবং ফুলবাগানে কয়েকজন ব্যবসায়ীর বাড়িতে ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে সিবিআই ও ইডি-র তদন্তকারীরা।

 বাঁশদ্রোণীতে রণধীর কুমার বানেওয়াল নামে এক ব্যবসায়ীর বাড়িতেও চলছে তল্লাশি। জানা যাচ্ছে ওই ব্যবসায়ীর কাছে কয়লা পাচারকাণ্ডের টাকা আসতো। এমনকি তাঁর সঙ্গে এলাকার একাধিক নেতা ও পুলিশ আধিকারিকদের যোগাযোগ রয়েছে বলেও জানতে পেরেছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। উল্লেখ্য, মূল অভিযুক্ত অনুপ মাঝি এখনও ফেরার। তাঁর খোঁজ করার পাশাপাশি তাঁর ঘনিষ্ঠ মহলের সকলকেই তল্লাশি অভিযানের আওতায় নিয়ে আসতে চাইছে সিবিআই। 


অপরদিকে, ইতিমধ্যেই কয়লা কাণ্ডে তৃণমূল যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই তদন্তকারীরা। এবার ব্যাঙ্ককে তাঁর দুটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের যাবতীয় তথ্য জানতে চেয়ে FLU-IND (financial intelligence unit)-এর দ্বারস্থ হয়েছে সিবিআই। জানা যাচ্ছে এই সংস্থার কাছে বিদেশের কোনও ব্যাঙ্কে ভারতীয়দের অ্যাকাউন্টের যাবতীয় তথ্য থাকে। সেটা কমার্শিয়াল এবং কর্পোরেট বা সাধারণ অ্যাকাউন্টই হোক না কেন। ফলে বেআইনি লেনদেন (Money laudering) সংক্রান্ত কোনও তথ্য পেতে হলে এই সংস্থার দ্বারস্থ হয়ে থাকে গোয়েন্দা সংস্থাগুলি।

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.