রায়গঞ্জে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের মুখে ‘জয় বাংলা’ লেখা মাস্ক, তুঙ্গে বিতর্ক

বুধবার গভীররাতে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলায় দুই কোম্পানী কেন্দ্রীয় বাহিনী এসে পৌঁছয়। বৃহস্পতিবার  সকাল থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা রায়গঞ্জ সহ বিভিন্ন এলাকায় রুট মার্চ শুরুও করে দেয়। রায়গঞ্জ দেবীনগর মহারাজা জগদীশনাথ হাইস্কুলে যে সমস্ত কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা রয়েছেন তাঁদের হাতে একটি করে সাদা রঙের মাস্ক তুলে দেওয়া হয়। করোনা আবহের কারনেই জওয়ানদের হাতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই মাস্ক সরবরাহ করা হয়েছে। কিন্তু ওই মাস্কে বড় হরফে লেখা হয়েছে ‘জয় বাংলা’। যা মূলত রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের নতুন রাজনৈতিক স্লোগান। আর ওই জয় বাংলা লেখা স্লোগানের স্টিকার লাগানো মাস্ক কেন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের বিলি করা হল এই নিয়ে শুরু হয় রাজনৈতিক চাপানউতোর। 

শাসক দলের এই শ্লোগান কেন্দ্রীয় বাহিনীর মাধ্যমে প্রচার করছে শাসক দল এই অভিযোগে সরব হয় বিরোধীরা।এই মাস্ককে ঘিরে শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক। বিজেপির উত্তর দিনাজপুর জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ীর অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেস পরিচালিত রাজ্য সরকার পরিকল্পিতভাবে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে দিয়ে তাঁদের প্রচার করতে চাইছে। তিনি বলেন, ‘আমরাও বাংলাকে ভালোবাসি এবং উন্নতি চাই, কিন্তু তৃনমূল কংগ্রেসের এই চক্রান্ত কোনভাবেই মেনে নেবেন না’। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে জেলায় কেন্দ্রীয় বাহিনী পৌঁছেছে। তাই বিষয়টি স্থানীয় নেতৃত্ব বিজেপি রাজ্য দফতরের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ জানাবেন। কেন্দ্রীয় বাহিনী যাতে এই ‘জয় বাংলা’ লেখা মাস্ক পড়ে শহরে রুট মার্চ না করেন তারও আবেদন জানানো হবে। অন্য দিকে তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল জানিয়েছেন, দলের কর্মসূচীতে বক্তব্যের শেষে জয় হিন্দ বা জয় বাংলা বলে তারা  বক্তব্য শেষ করেন। তাই কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা জয় বাংলা লেখা মাস্ক পড়াতে কোনও অন্যায় দেখছেন না তৃণমূল জেলা সভাপতি।

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.