বিতর্ক এড়াতে সমস্ত সরকারি পদ থেকে ইস্তফা দেবেন ফিরহাদ

নির্বাচন কমিশনের আইনি প্যাঁচে পড়েই কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমন্ডলীর চেয়াম্যান পদ থেকে ইস্তফা দিতে চলেছেন ফিরহাদ হাকিম। একইসঙ্গে তিনি আরও কয়েকটি সরকারি পদ থেকেও ইস্তফা দেবেন বলে সূত্রের খবর। উল্লেখ্য এর আগেই কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমন্ডলীর চেয়াম্যান পদ থেকে হঠাতে ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে বিরোধীরা মামলা দায়ের করেছিল। তাতেও তাঁকে সরাতে পারেনি বিরোধীরা। কোনও পদ থেকেই ইস্তফা দেননি রাজ্যের মন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। অবশেষে এই কাজটা করল নির্বাচন কমিশনের আইন। এবার কলকাতা পুরসভার প্রশাসকমণ্ডীর চেয়ারম্যান সহ সমস্ত সরকারি পদ থেকেই ইস্তফা দিচ্ছেন। বর্তমানে তিনি কেএমডিএ চেয়ারম্যান, নবদিগন্ত শিল্পতালুকের চেয়ারম্যান এবং ফুরফুরা শরিফ উন্নয়ন পর্ষদেরও শীর্ষ পদে রয়েছেন। প্রত্যেকটি পদ থেকেই সরছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয়পাত্র ফিরহাদ তথা ববি হাকিম। 


বিধানসভা নির্বাচনে কোলকাতা পোর্ট বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী ফিরহাদ হাকিম। কলকাতা পুরনিগমের মুখ্য প্রশাসক পদে ফিরহাদ ইস্তফা দিলেই ভেঙে যাবে পুরবোর্ড। একইসঙ্গে কলকাতা পুরসভার ১৪৪টি ওয়ার্ডের কো অর্ডিনেটর পদও বিলুপ্ত হবে। ফলে তাঁদের সরকারি তকমাও চলে যাবে। একই সঙ্গে কলকাতার ১৬টি বরোর কো অর্ডিনেটররাও গাড়ি এবং সরকারি সুযোগ সুবিধা হারাবেন। অপরদিকে ফিরহাদ যে সমস্ত সরকারি বোর্ডের চেয়ারম্যান, সেগুলি থেকে ইস্তফা দিলে ওই বোর্ডগুলিও ভেঙে যাবে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, ভোটে দাঁড়াতে হলে সমস্ত সরকারি পদ থেকে সরে দাঁড়াতে হয়, সেই কারণেই ফিরহাদ হাকিমের এই সিদ্ধান্ত। রাজ্য সরকারের মনোনীত সরকারি পদে থাকলে নির্বাচন কমিশনের ‘অফিস অফ প্রফিট’ আইনে আটকে যেতে পারেন ফিরহাদ।

এবারে তৃতীয়বারের জন্য কলকাতা বন্দর কেন্দ্রে প্রার্থী হচ্ছেন তিনি। সম্ভবত ৭ ই এপ্রিল মনোনয়ন পত্র জমা দেবেন। তার ঠিক আগেই পুরসভার প্রশাসক সহ সমস্ত সরকারি পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। ইতিমধ্যেই ফিরহাদ হাকিম স্টেট পাবলিক পলিসি অ্যান্ড প্ল্যানিং কমিটি, স্কিল ডেভলপমেন্ট মিশন, মহাজাতি অছি পরিষদ এবং কেবল টিভি নেটওয়ার্কের চেয়ারম্যান পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে দিয়েছেন। বাকিগুলিতেও শীঘ্রই দিতে চলেছেন। একই কারণে কয়েকটি সরকারি পদে এবং মেয়র পারিষদ পদে ইস্তফা দিচ্ছেন অপর দুই টিকিট পাওয়া মেয়র পারিষদ দেবাশিস কুমার এবং অতীন ঘোষ।


Post a Comment

2 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.
  1. At last he reached his destination,via Left & TMC. As BJP is trying its best to project an influential (??) Bengali personality to clear the 'outsiders' label.Still
    state BJP is in leadership crisis.

    ReplyDelete
  2. At last he reached his destination,via Left & TMC. As BJP is trying its best to project an influential (??) Bengali personality to clear the 'outsiders' label.Still
    state BJP is in leadership crisis.

    ReplyDelete

Thank You for your important feedback