দেশবাসীকে ভরসা দিতে ‘Covaxin’ টিকা নিলেন প্রধানমন্ত্রী

সোমবার থেকে শুরু হল দ্বিতীয় পর্যায়ের করোনার টিকাকরণ। আর এই দিনই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিলেন করোনার টিকা। তিনি কবে টিকা নেবেন সেটা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই জল্পনা চলছিল। এবার দ্বিতীয় পর্যায়ের টিকাকরণ শুরু হতেই তিনি টিকা গ্রহণ করে সব জল্পনার অবসান করলেন। সেই সঙ্গে দেশবাসীকে বার্তা দিলেন, করোনামুক্ত ভারত গড়ে তুলতে একজোট হওয়ার ডাকও দিলেন। এদিন টুইট করে মোদি জানান, ‘কোভিড-১৯ -এর সঙ্গে বিশ্ববাসীর লড়াইয়ে ভারতের বিজ্ঞানী এবং চিকিৎসকদের অবদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ’। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী দেশবাসীর কাছে আবেদন করেন, প্রত্যেককেই যেন টিকা নেন। সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী ভারত বায়োটেকের ‘Covaxin’ টিকা গ্রহন করেন। প্রধানমন্ত্রীকে করোনার টিকা দিয়েছেন দিল্লির AIIMS-এর নার্স পি নিভেদা। তিনি পুদুচেরির বাসিন্দা।

ল্লেখ্য, কোভ্যাক্সিন টিকার কার্যকারিতা এবং তথ্য নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। এই নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্নও উঠছিল। পরবর্তী সময়ে এটা নিয়ে রাজনৈতিক তরজাও শুরু হয়েছিল। রাজনৈতিক মহলের মতে, সচেতনভাবেই প্রধানমন্ত্রী ভারত বায়োটেকের কোভ্যাক্সিন বেছে নিয়েছেন। এক্ষেত্রে সবরকম বিতর্ক থামিয়ে তিনি কোভ্যাক্সিন টিকাই নিলেন। প্রসঙ্গত দেশজোড়া যে টিকাকরণ প্রক্রিয়া চলছে তাতে কাকে কোন টিকা দেওয়া হচ্ছে সেটা আগাম জানা যায় না। ফলে টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে অনেকেই পিছিয়ে যাচ্ছিলেন। এবার মোদি কোভ্যাক্সিন টিকা নিয়ে তাঁদেরকেই বার্তা দিলেন। 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.