স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার, প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে আইনি জটিলতা কাটল

শেষ পর্যন্ত রাজ্যে টেট পরীক্ষায় উত্তির্ণদের প্রাথমিক শিক্ষকের পদে নিয়োগের আইনি জটিলতা কাটল। বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ আগের সিঙ্গল বেঞ্চের দেওয়া স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করল। ফলে যে ১৬,৫০০ শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের কাজ চলছিল, তাতে আর কোনও বাধা থাকল না রাজ্য প্রশাসনের। অপরদিকে ইতিমধ্যেই যারা নিয়োগপত্র হাতে পেয়েছিলেন, তাঁদেরও কাজে যোগ দিতে আর সমস্যা হবে না। কলকাতা হাইকোর্টের এদিনের রায়ে খুশির হাওয়া চাকরিপ্রার্থীদের মধ্যে। অপরদিকে স্বস্তি পেল রাজ্য প্রশাসনও। 

উল্লেখ্য, গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ১৬,৫০০ শূন্যপদের মধ্যে প্রথম ধাপে ফল প্রকাশ করা হয় ১৫,২৮৪ জনের। সেইমতো তড়িঘড়ি শুরু হয়ে যায় নিয়োগের প্রক্রিয়াও। বেশ কয়েকজন কাজেও যোগ দিয়েছিলেন। এরমধ্যেই চাকরিপ্রার্থীদের একাংশ অনিময় এবং অস্বচ্ছতার অভিযোগ তুলে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। শুনানির পর কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ গোটা প্রক্রিয়ায় স্থগিতাদেশ জারি করে। 

 

এরপর বুধবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হয়। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে বৃহস্পতিবারই শুনানি হয়। তাতেই সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ে স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করে নেয় ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতিরা। যদিও কয়েকটি শর্তও দেওয়া হয়েছে নিয়োগের ক্ষেত্রে। যেমন, শুধু ওয়েবসাইটেই মেধা তালিকা দিলে হবে না, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ এবং ডিআই (DI) অফিসে টাঙাতে হবে তালিকা।

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.