হেলিকপ্টারে যান্ত্রিক ত্রুটি, ঝাড়গ্রামে ভার্চুয়াল ভাষণ দিলেন অমিত শাহ

 

হেলিকপ্টারে যান্ত্রিক ত্রুটি, তাই সোমবার ঝাড়গ্রামের সভায় যেতেই পারলেন না কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। সভার প্রস্তুতি সাড়া হয়ে গিয়েছিল, সভায় ভিড়ও জমিয়েছিলেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে অমিতের সেখানে যাওয়া বাতিল হয়। কিন্তু জনসভা বাতিল করেননি অমিত শাহ। তিনি হোটেল থেকেই ভার্চুয়ালি ভাষণ দিলেন। তড়িঘড়ি সভায় বড় পর্দা লাগিয়ে ফেলেন ঝাড়গ্রামের বিজেপি নেতারা। সোমবার ঝাড়গ্রামের জামদা সার্কাস ময়দানে অমিত শাহর জনসভা করার কথা ছিল। রবিবার রাতেই খড়গপুরে পৌঁছে গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে খড়গপুর সদরের বিজেপির প্রার্থী অভিনেতা হিরণকে পাশে নিয়ে রোড শো করেন অমিত শাহ।


 সোমবার ঝাড়গ্রামে যাওয়ার আগেই ঘটল বিপত্তি। তাঁর হেলিকপ্টারে যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দিল। ফলে তাঁর ঝাড়গ্রাম যাত্রা বাতিল করতে হল। তবে ভার্চুয়াল ভাষণে তিনি ফের বাংলার শাসকদলকে তীব্র আক্রমণ করেন। অমিত শাহ বলেন, মমতা দিদির আমলে কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সুযোগ পায়নি পশ্চিমবঙ্গের মানুষ। বিজেপি ক্ষমতায় এলে আদিবাসীদের আত্মনির্ভর করব আমরা। ঝাড়গ্রামে আদিবাসী বিশ্ববিদ্যালয় হবে। এদিন তিনি এও জানান, এবার ঝাড়গ্রামে যেতে না পারলেও নির্বাচন শেষের আগেই তিনি একবার সেখানে যাবেন। পাশাপাশি এই গরমেও যারা তাঁর জন্য সভায় উপস্থিত হয়েছিলেন তাঁদের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এর কিছুক্ষণ পর বাঁকুড়ার রানিবাঁধের উদ্দেশ্যে হেলিকপ্টারেই রওনা দিয়েছেন অমিত শাহ। 

এদিন ঝাড়গ্রামে সভার প্রথম থেকেই গোলমালের খবর আসে। অভিযোগ ওঠে, জামদা সার্কাস ময়দানের সভাস্থলে ঢোকার মুখে সুরক্ষা ব্যবস্থা সঠিক রাখার নামে বাধা দেওয়া হচ্ছে দলীয় কর্মী সমর্থকদের। এমনকি জলের বোতল নিয়েও ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না কাউকে। পাশাপাশি সভাস্থল থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে গাড়ি দাঁড় করিয়ে দেওয়া হচ্ছে। অতটা রাস্তা হেঁটে আসতে সমস্যায় পড়ছেন অনেকেই। ফলে সভায় জনসমাগম হচ্ছে না। খবর পেয়েই স্থানীয় বিজেপি নেতা এবং প্রার্থী সুখময় ষতপথি ছুটে যান সেখানে। 


 পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তাঁরা। শুখময়বাবু বলেন, এটা দলীয় কর্মসূচি, তাই দলীয় কর্মীদের সুযোগ দিতে হবে। তিনি দাবি করেন, পুলিশ ইচ্ছে করে বিজেপি সমর্থকদের সভায় ঢুকতে দিচ্ছে না। যদিও তৃণমূল যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দাঁতনের সভা থেকে এই ঘটনাকে কটাক্ষ করেন। অভিষেক বলেন, সভায় লোক হয়নি বলেই অমিত শাহ ঝাড়গ্রামে যাননি। তাঁর কটাক্ষ, গ্রামে জেসিবি মেশিন নিয়ে মাটি কাটলেও এর থেকে বেশি ভিড় হয়।

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.