নন্দীগ্রাম দিবসেই তৃণমূলের ইস্তেহার প্রকাশ হবে

তৃণমূলের এখন পাখির চোখ নন্দীগ্রাম। এখান থেকেই তৃণমূল নেত্রীর প্রেস্টিজ ফাইট। তাই আগামী ১৪ মার্চ নন্দীগ্রাম দিবসেই দলের নির্বাচনী ইস্তাহার প্রকাশ করবে তৃণমূল কংগ্রেস। নন্দীগ্রামেই প্রচারে গিয়ে পায়ে চোট পেয়ে আপাতত এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে তিনি জানিয়েছেন, হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েই দলের হয়ে প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়বেন। যাবেন জেলায় জেলায়, প্রয়োজনে হুইল চেয়ারেই প্রচার করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই পরিস্থিতিতে দলীয় নির্বাচনী ইস্তেহার প্রকাশের কর্মসূচি পিছিয়ে যায়। এবার শাসকদলের শীর্ষনেতারা তাৎপর্যপূর্ণভাবে নন্দীগ্রাম দিবসের দিনটিই বেছে নিলেন দলীয় ইস্তেহার প্রকাশের জন্য।

 

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের মতে, এতে একঢিলে দুই পাখি মারা যাবে। নন্দীগ্রাম আন্দোলন থেকেই যেমন তৃণমূলের উত্থান, তেমনই নন্দীগ্রাম তৃণমূল নেত্রীর হৃদয়েই রয়েছে সেটাও প্রমান করা যাবে। কারণ একুশের কঠিন লড়াইয়ে তিনি এই কেন্দ্রকেই বেছে নিয়েছেন ভোটে লড়ার জন্য। তৃণমূল সূত্রে জানা যাচ্ছে, এবারের ইস্তেহারে বেশ কয়েকটি বিষয়কে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। যেমন বিনামূল্যে রেশন ব্যবস্থা, স্বাস্থ্যসাথী, শিক্ষা, শিল্প ও কর্মসংস্থানের মতো বিষয়গুলি। অর্থাৎ ইস্তেহারে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে তৃণমূলের বিগত ১০ বছরের উন্নয়নমূলক প্রকল্পগুলিকেই। পাশাপাশি থাকবে NRC ও CAA ইস্যুও। প্রসঙ্গত, এবার তৃণমূল দলীয় ইস্তেহার তৈরিতে দলের নীচুতলার কর্মীদেরও মতামত নিয়েছিল।  

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.