সোনালীর পর এবার তৃণমূলে ফিরতে চাইলেন বিজেপির সরলা

শনিবারই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফিরতে চেয়ে আবেগঘন টুইট করেছিলেন প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক সোনালী গুহ। ২৪ ঘন্টার মধ্যেই আরেক বিজেপি নেত্রী ফিরতে চাইলেন পুরোনো দল তৃণমূলে। এবার আবেদন করলেন মালদা জেলা পরিষদের প্রাক্তন কর্মাধ্যক্ষ সরলা মুর্মু। তাঁর দাবি তৃণমূলে ফিরতে চেয়ে দলনেত্রীকেই চিঠি দিয়েছেন তিনি। তবে মালদা জেলা তৃণমূল নেতৃ্ত্বের দাবি, এরকম কোনও চিঠি তাঁরা পাননি। প্রসঙ্গত, একুশের বিধানসভা ভোটের কয়েকদিন আগেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন সরলা মুর্মু। তাঁকে তৃণমূল হবিবপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করেছিল। যেটা তিনি মেনে নিতে পারেননি। চেয়েছিলেন পুরাতন মালদহ থেকে লড়তে। কিন্তু দল সেই দাবি না মানলে তাতে অভিমান করেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। 

 


সরলার দাবি, বিজেপিতে গিয়েও কার্যত নিষ্কৃয় হয়ে বসে থাকতে হচ্ছিল। অপরদিকে তাঁকে ভোটে টিকিটও দেয়নি বিজেপি। সরলাদেবীর বক্তব্য, ভোটের ফল প্রকাশের পর মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, দলবদলকারীরা ফের দলে ফিরতে চাইলে তাঁদের স্বাগত। সেই কথাতেই তিনি ফের পুরোনো দলে ফিরতে চান এবং নেত্রীর সহযোদ্ধা হিসেবে লড়াই করতে চান। এই প্রসঙ্গে বিজেপির জেলা সভাপতি গোবিন্দ চন্দ্র মন্ডল বলেন এ বিষয়টি আমার জানা নেই। এ বিষয় নিয়ে কথা বলবো। অপরদিকে মালদা জেলা তৃণমূল যুব সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস বলেন, তাঁকে (সরলা মুর্মু) শহর তৃণমূল যথেষ্ট সম্মান দিয়েছিল। প্রার্থীও করেছিল হবিবপুরে। কিন্তু তিনি দলকে বিপদে ফেলে পালিয়ে গিয়েছিলেন। এদের মেনে নেওয়া যাবে না, তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য নেতৃত্ব। তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ যদিও পরিস্কার করেছেন, যারা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন তাঁদের ফিরে আসা নিয়ে দল এখনও কোনও নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়নি।


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.