বাগবাজারের পর নিউটাউনে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড, পুড়ে ছাই একাধিক ঝুপড়ি

বাগবাজারের রেশ কাটতে না কাটতেই ফের আগুন লাগার ঘটনা ঘটল শহরে। বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে ভস্মীভূত নিউটাউনের একাধিক ঝুপড়ি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিউটাউনের শুলংগুঁড়ি কলোনিতে আগুন লাগে। দমকলের চারটি ইঞ্জিন প্রায় দু'ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে আগুন লাগার সঠিক কারণ এখনও জানা যায়নি। ঘটনায় কেউ হতাহত হননি। আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান নিউটাউন থানার পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনের আধিকারিকরা। 

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সন্ধে নাগাদ প্রথমে একটি ঝুপড়ি বাড়িতে আগুন লাগে। প্রাথমিক অনুমান শর্টসার্কিট বা সিলিন্ডার ফেটেই এই কান্ড। তবে উত্তুরে  হাওয়ার বেগ বেশি থাকায় তা দ্রুত পাশাপাশি থাকা ঝুপড়ি গুলিতেও ছড়িয়ে পড়ে। তবে স্থানীয় যুবকরা প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই আগুন নেভানোর কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েন।  দমকলে খবর দেওয়া হলে প্রায় ৪ টি ইঞ্জিনের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় কিছুটা সমস্যায় পড়তে হয় দমকল কর্মীদের। গাড়ি ঢুকতে না পারায় পাইপের মাধ্যমে জল এনে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন তাঁরা। তবে প্রায় চার-পাঁচটি ঝুপড়ি বাড়ি সম্পূর্ণ ভস্মীভূত। আরও কয়েকটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। বাসিন্দাদের অভিযোগ, দমকল দেরিতে আসার ফলেই এতটা ক্ষতি হয়েছে। এবিষয়ে দমকলবাহিনী জানান, সঠিক সময়ে এলেও রাস্তা সরু হওয়ার জন্য গাড়ি ঢোকানো যায়নি।  

প্রসঙ্গত, বুধবার অগ্নিকাণ্ডে কার্যত পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে বাগবাজারে হাজারহাত বস্তি। একের পর এক সিলিন্ডার ফেটে মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়েছিল যে আগুন। গৃহহীন প্রায় ঝুপড়ির কয়েকশো মানুষ। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই ঘটনার ২৪  ঘন্টা কাটতে না কাটতেই ফের নিউটাউনের বস্তিতে আগুন। পরপর এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে শহরের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা নিয়েও। ঘিঞ্জি এলাকায় আগুন নেভানোর পরিকাঠামো নেই। ঘটনার পর তাৎক্ষণিক কিছু ব্যবস্থা নেয় প্রশাসন, ফের যে কে সেই।  


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.