তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দলে উত্তপ্ত ক্যানিং, চলল গুলি-বোমা, আক্রান্ত পুলিশ

আবারও তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দলে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং। শাসকদলের মাদার ও যুব সংগঠনের সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষে চলল বোমা-গুলি। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে যায় ক্যানিং থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। কিন্তু জানা যাচ্ছে দুই দলের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে আক্রান্ত হয়েছে পুলিশকর্মীরাও। আহত হয়েছেন একাধিক পুলিশকর্মী। পাশাপাশি ১৫ জনের বেশই তৃণমূল কর্মীও আহত হয়েছেন। এরমধ্যে কয়েকজন মহিলাও রয়েছেন। পরে পুলিশের আরও বাহিনী পাঠানো হয়েছে ক্যানিংয়ের গোলাবাড়ি এলাকায়। জানা যাচ্ছে দুপুর সাড়ে বারোটা পর্যন্ত এলাকায় গোলমাল থামেনি। পরিস্থিতি এখনও উত্তেজিত। যদিও ঘটনার দায় এড়াচ্ছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তাঁদের বক্তব্য এটা গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ঘটনা নয়। দুষ্কৃতীরাই এই গোলমালের পিছনে দায়ী। 


তবে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার ক্যানিংয়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের একটি দলীয় সভা ছিল। ওই সভার পর থেকেই অশান্তির সূত্রপাত। তৃণমূলের মাদার ও যুব গোষ্ঠীর নেতাদের মধ্যে বাঁধে বিরোধ। সেখান থেকেই মারামারি, বোমাবাজির ঘটনা। সোমবার সকালে ফের বিবাদ চরমে ওঠে। যুবর অঞ্চল সভাপতি এবং মূল সংগঠনের সভাপতি একে-অপরের দিকে গুলিও চালায় বলে দাবি স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনাস্থলে যায় ক্যানিং থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। কিন্তু গোলমালের মধ্যে আক্রান্ত হতে হয় পুলিশকেও। এক পুলিশ কর্মীর পায়ে গুলি লেগেছে বলে খবর। 

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.