লক্ষ্মীবারে মুর্শিদাবাদ নিয়ে জরুরি বৈঠক তৃণমূলের, থাকতে পারেন দলনেত্রী

মুর্শিদাবাদ জেলা তৃণমূলের পর্যবেক্ষক ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি সম্প্রতি দল বদলে যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। ফলে এই জেলায় দলের ভাঙন দেখা দিতে পারে বলেই মনে করছে তৃণমূলের শীর্ষ নেতৃত্ব। শিয়রেই বিধানসভা ভোট তার আগেই শুভেন্দুর দলবদলে যথেষ্টই ফাঁপরে পড়েছেন তৃণমূল নেতৃত্ব। তাই বৃহস্পতিবারই তৃণমূল ভবনে জরুরি বৈঠক ডাকল শীর্ষ নেতৃত্ব। এই বৈঠক শুধুমাত্র মুর্শিদাবাদ জেলা নিয়েই ডাকা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। 

জানা যাচ্ছে, এই জেলার ৫৫ জন নেতাকে তৃণমূল ভবনে আসতে বলা হয়েছে। বাকি ১৫০ নেতা ও জনপ্রতিনিধিদের ভার্চুয়ালি যোগ দিতে বলা হয়েছে এই বিশেষ বৈঠকে। সূত্র মাত্র জানা যাচ্ছে বৈঠকে যোগ দিতে পাড়েন স্বয়ং তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুভেন্দু ছেড়ে যাওয়ার পর দলের কী অবস্থা তা পর্যালোচনা করতেই এই বিশেষ বৈঠক বলে জানা যাচ্ছে। 

 মুর্শিদাবাদ জেলায় ২২টি আসন রয়েছে। এই জেলা মূলত সংখ্যালঘু অধ্যুষ্যিত। ফলে সংখ্যালঘু ভোট নিজেদের ভোটবাক্সে নিতে মরিয়া তৃণমূল নেতৃত্ব। এরমধ্যেই আবার সংখ্যালঘু ভোটে ভাগ বসাতে চাইছে আসাউদ্দিন ওয়েইসির ‘মিম’ এবং ফুরফুরা শরিফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির সম্ভাব্য জোট। তাই আশঙ্কার মেঘ জমছে শাসকদলের শিবিরে। ফলে আগেভাগে ঘর গোছাতেই বৃহস্পতিবার মুর্শিদাবাদ জেলার নেতৃত্বের সঙ্গে জরুরী বৈঠকে বসছে রাজ্য নেতৃত্ব। রাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখতে হলে এই সংখ্যালঘু অধ্যুষ্যিত জেলাগুলি থেকে বেশি সংখ্যক আসন ঝুলিতে পুরতে হবে তৃণমূলকে। তাই আপাতত দলের গোষ্ঠীকোন্দল এবং শুভেন্দুর প্রভাব মুক্ত করতে উদ্যোগী হল তৃণমূলের সর্বোচ্চ নেতৃত্ব। 

 

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.