শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকে সম্মান জানানো উচিতঃ রাষ্ট্রসংঘ

শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ, জমায়েত করার স্বাধীনতা, অহিংসাকে সম্মান করা উচিত। দিল্লিতে কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে কৃষকদের ট্র্যাক্টর মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের পর রাষ্ট্রংসঘের মহাসচিব আম্তোনিও গুইতেরাস বুধবার বলেছেন এই কথা। এপর্যন্ত দিল্লি পুলিশ ২২টি এফআইআর দায়ের করেছে। আহত হয়েছেন ৩০০ পুলিশকর্মী। জানা যাচ্ছে, আগামী ১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় বাজেট পেশের দিন পায়ে হেঁটে সংসদ অভিযানের কর্মসূচি সম্ভবত বাতিল করতে চলেছেন কৃষকরা। 

অন্যদিকে, এরপর কী করণীয় তা ঠিক করতে বুধবারই নিজেদের মধ্যে বৈঠকে বসছে ৪১টি কৃষক সংগঠনের যৌথমঞ্চ সংযুক্ত কিষাণ মঞ্চ। তার আগে পাঞ্জাবের ৩২টি সংগঠনের নেতারা সিংঘু সীমান্তে বৈঠক করবেন। সেখানে মঙ্গলবারের ঘটনার বিস্তারিত আলোচনা হবে। সংযুক্ত কিষাণ মোর্চা ইতিমধ্যেই গোলমালের জন্য দায়ী লোকজনদের থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছে। তারা বলেছে, কিছু সমাজবিরোধী এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। তারাই মিছিলে ঢুকে বিশৃঙ্খলা তৈরি করেছে। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের হাজার হাজার কৃষক দিল্লির তিনটি সীমান্তে অবস্থান চালিয়ে যাচ্ছেন।

Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.