বিধানসভায় পার্শ্বশিক্ষকদের বেনজির বিক্ষোভ, ধুন্ধুমার

বেতন বৃদ্ধি, সম কাজে সম বেতন সহ ২৬ দফা দাবিতে দীর্ঘদিন ধরেই আন্দোলন বিক্ষোভ করছেন পার্শ্বশিক্ষকরা। বুধবার রাজ্য বিধানসভা ভবনের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন পার্শ্বশিক্ষক ঐক্য মঞ্চের সদস্যরা। তাঁদের দাবি ছিল, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা না করে তাঁরা এলাকা ছাড়বেন না। বিধানসভার সামনে উপস্থিত পুলিশ কর্মীরা তাঁদের সরে যাওয়ার অনুরোধ করেন। এরমধ্যেই তাঁরা বিধানসভার গেটের সামনে বসে পড়েন। তুমুল বিক্ষোভ শুরু হয়, পুলিশও বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে ধুন্ধুমার শুরু হয় বিধানসভার গেটের বাইরে। বিক্ষোভকারীরা বিধানসভা ভবনের গেট টপকে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করতে থাকেন। পুলিশ ৫০ জনের বেশি বিক্ষোভকারীকে গ্রেফতার করেছে বলে দাবি পার্শ্বশিক্ষকদের। 

বুধবার থেকেই রাজ্য বিধানসভা চালু হওয়ার কথা। সেইমতো এদিন সকাল ১১টা থেকে বিধানসভার গেটের কাছেই জড়ো হয় কয়েকশো বিক্ষাভকারী। কিন্তু এদিন মুখ্যমন্ত্রী বিধানসভায় যাবেন না খবর পেয়েই তাঁরা গেটের সামনে এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন পার্শ্বশিক্ষকরা। এমনকি ৬ নম্বর গেট টপকে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করেন বিক্ষোভকারীদের কয়েকজন। বেঁধে যায় ধুন্ধুমার। পুলিশ বাঁধা দিতে গেলে খণ্ডযুদ্ধ শুরু হয়ে যায় দু’পক্ষের মধ্যে। পরে পুলিশ বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে বাকিদের বিধানসভা চত্বর থেকে সরিয়ে নিয়ে যায়। 

তৃণমূল নেতা তথা রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় এদিনের পার্শ্বশিক্ষকদের এই নজিরবিহীন বিক্ষোভকে কটাক্ষ করেন। তিনি বলেন, বিধানসভা পবিত্র জায়গা, একে অপবিত্র করার চেষ্টা উচিত নয়। অপরদিকে পার্শ্বশিক্ষকদের বক্তব্য, সিঙ্গুর আন্দোলনের সময় বিধানসভায় ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর করেছিল তৃণমূল নেতৃত্ব। তখন কি অপবিত্র হয়নি বিধানসভা? তাঁদের আরও দাবি, বহুবার প্রতিশ্রুতি দিয়েও পার্শ্বশিক্ষকদের কিছু দেয়নি। উল্টে মারধোর করে টেনেহিঁচড়ে বিধানসভা ভবন থেকে আন্দোলনরত শিক্ষকদের সরিয়ে দেয় পুলিশ। 


Tags

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.