ওয়েইসি ও আব্বাস সিদ্দিকীর বিচ্ছেদ?

অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন বা মিম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়েইসি চেয়েছিলেন পশ্চিমবঙ্গের আসন্ন নির্বাচনে একক শক্তিতে লড়ার। যাতে সংখ্যালঘু ভোট তাঁদের বাক্সেই পরে। এই কারণে বাংলায় এসে তিনি পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন। মিম প্রধানের ইচ্ছা ছিল মায়াবতী বা ওই গোত্রীয় ছোট দলগুলির সঙ্গে জোট করে বঙ্গ ভোটে লড়ার। কিন্তু আব্বাস সিদ্দিকী ইতিমধ্যেই নতুন রাজনৈতিক দল ঘোষণা করে ভোটে লড়ার জন্য বাম-কংগ্রেস জোটে যোগ দিতে চাইছেন। আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন বাম ও কংগ্রেস নেতৃত্বের সঙ্গে। এমনকি তাঁদের ‘ঐক্যবদ্ধ’ জোট করা প্রায় নিশ্চিত। ঠিক তখনই বেসুরো কথা বলছেন আসাদুদ্দিন ওয়েইসি। 

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারী ব্রিগেডে বাম-কংগ্রেসের ঐক্যবদ্ধ জোটের সমাবেশ। ঠিক তার আগেই আসাদুদ্দিন এ রাজ্যে আসছেন এবং মিমের হয়ে জনসভা করবেন। তাৎপর্যপূর্ণভাবে স্থান ঠিক হয়েছে কলকাতার মেটিয়াবুরুজ। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের ধারণা, যে কোনও ভাবেই হোক আসাদুদ্দিন তাঁর পুরোনো খেলার মতো সংখ্যালঘু ভোট বিভাজন করতে চাইছেন। এবং এই কারণেই তিনি আব্বাস সিদ্দিকীর উপর ভরসা রেখেছিলেন। কিন্তু ক্রমাগত তৃতীয় ফ্রন্টে আব্বাস চলে যাচ্ছেন দেখে প্রমাদ গুনে ফের এই রাজ্যে আসছেন। এবার আব্বাসকে বাদ দিয়ে একক ক্ষমতায় জনসভা করে বার্তা দিতে চাইছেন। তবে কি এবার নয়া সমীকরণ তৈরী করার পথে এগোচ্ছেন আসাদুদ্দিন ওয়েইসি?    

 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.