কেন্দ্রীয় বাজেট ২০২১, লাইভ আপডেট…

স্বদেশি খেরোর খাতার বদলে এবার ট্যাব। করোনা অতিমারির জেরে এবার অনেক বদল হয়েছে বাজেটের। পুরো বাজেট বক্তৃতাই হবে ডিজিটাল। আগেকারমতো ছাপানো বাজেট এবার নেই। লোকসভায় চলে এসেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। সঙ্গে প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর। শুরু হল বাজেট ভাষণ।

বাজেট ভাষণে নির্মলার মুখেও রবীন্দ্রনাথের কবিতা। বিশ্বাস হল সেই পাখি যে আলোর আভাস পায় যখন ভোর হয়নি। 


আত্মনির্ভর স্বাস্থ্যপ্রকল্পে ৬ বছরের জন্য ৬৪,১১৮০ কোটঃ নির্মলা

আত্মনির্ভর স্বাস্থ্যপ্রকল্পে ৬ বছরের জন্য ৬৪,১১৮০ কোটি টাকার নতুন প্রকল্প ঘোষণা করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। কেন্দ্র ১৫টি জরুরি স্বাস্থ্যকেন্দ্র চালু করবে। রোগ নিয়ন্ত্রণে সহায়ক হবে এই প্রকল্প। তিনি বলেন, দেশে করোনা সংক্রমণ এখন নিয়ন্ত্রণে। এটাই গেশের আর্থিক উন্নতির পিছনে কাজ করছে। 

তিনি বলেন, সাধারণ নাগরিকদের কল্যাণে কেন্দ্র গরিব কল্যাণ যোজনা করেছে। তিনটি আত্মনির্ভর প্যাকেজ ঘোষণা করেছে। মোটামুটিভাবে পাঁচটি মিনি বাজেট পেশ হয়েছে ইতিমধ্যেই। ২৭ লাখ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। অভূতপূর্ব পরিস্থিতিতে এবারের বাজেট। 


রাজ্যে রাস্তা সংস্কারে ২৫ হাজার কোটি 

খড়্গপুর থেকে বিজয়ওয়াড়া ফ্রেট করিডর নির্মাণ করা হবে। ৬৭৫ কিলোমিটার সড়ক তৈরির লক্ষ্যমাত্রা ধার্য হয়েছে বাংলায়। কলকাতা-শিলিগুড়ি রাস্তা সংস্কার, পশ্চিমবঙ্গের রাস্তা সংস্কারের জন্য বরাদ্দ ২৫ হাজার কোটি টাকা। সেইসঙ্গে নির্মলা বলেন, জাতীয় সড়ক নির্মাণের কাজ বেসরকারি সংস্থার হাতে তুলে দেওয়া হবে। এ ক্ষেত্রে বিদেশিরাও বিনিয়োগ করতে পারবেন। ৩ বছরে ৫ লক্ষ কোটি টাকা ঋণ দেওয়া হবে। 


বিমার মালিকানা এবার বিদেশিদেরও, প্রস্তাব নির্মলার

বিমাক্ষেত্রে বিদেশি লগ্নি ৭৪ শতাংশ থেকে বেড়ে হল ৪৯ শতাংশ। নির্মলা সীতারমন জানান,  বিদেশি লগ্নির ঊর্ধ্বসীমা বাড়ানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। কিছু রক্ষাকবচ দিয়ে বিদেশি কোম্পানিগুলিকে বিমার মালিকানা দেওয়া হবে। রেলের জন্য বরাদ্দ হচ্ছে ১,১০,০৫৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে ১,০৭,১০০ কোটি টাকা মূলধনী ব্যয়। ২০৩০ সালের জন্য রেল একটি জাতীয় রেল পরিকল্পনা তৈরি করেছে। এর ফলে রেলের কৌশলগত খরচ কমে যাবে বলে নির্মলার দাবি। রেলের যন্ত্রাংশ দেশেই তৈরির করার ওপর জোর দেওয়া হচ্ছে। উজ্জ্বলা প্রকল্প আরও ১ কোটি নাগরিকের জন্য বাড়ানো হবে। ভারতমালা সড়ক যোজনায় ১৩ হাজার কিলোমিটার রাস্তা তৈরি হবে ২০২২ সালের মার্চের মধ্যে। 


পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ পোর্টাল

লকডাউনে বিধ্বস্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কিছু পদক্ষেপের কথা জানিয়েছেন নির্মলা। পরিযায়ী শ্রমিকদের সব তথ্য জানার জন্য কেন্দ্র একটি পোর্টাল চালু করবে। সেখান থেকেই তাদের সামাজিক সুরক্ষার বন্দোবস্ত করা হবে। সব রাজ্যেই এক দেশ, এক রেশনকার্ড চালু হতে চলেছে। সেই কার্ডে দেশের যে কোনও জায়গা থেকেই রেশন নিতে পারবেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। দিনমজুর ও অসংগঠিত শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি নিষ্চিত করা হবে। মহিলা শ্রমিকদের সবধরনের কাজেই নিয়োগ করা হবে, নাইট শিফটেও তাঁরা সুরক্ষা নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

৭৫ বছরের বেশি নাগরিকদের আয়কর রিটার্ন জমায় ছাড় 

পেনশনভোগী ও ব্যাঙ্কের সুদের ওপর নির্ভরশীল ৭৫ বছরের বেশি বয়স্ক নাগরিকদের আর আয়করের রিটার্ন জমা দিতে হবে না। ছোট আয়করদাতাদের বিবাদ নিষ্পত্তির জন্য একটি সালিশি কমিটি তৈরি করা হবে। সেটি সম্পূর্ণভাবে মুখহীন। দক্ষতা আর স্বচ্ছতার জন্য আয়কর অফিসারদের সংস্পর্শ ছাড়াই মীমাংসা হবে। ৫০ লাখ পর্যন্ত যাঁদের রোজগার ও বিবাদিত আয় ১০ লাখের মধ্যে তাঁরাই ওই কমিটির কাছে যেতে পারবেন।

ঘাটতি মেটাতে ৮০ হাজার কোটি ধার করবে কেন্দ্র

দেশের আর্থিক ঘাটতি জিডিপির ৬.৮ শতাংশ। বাজেট বক্তৃতায় নির্মলা জানিয়েছেন, ২০২১-২০২২ অর্থবর্ষে আর্থিক ঘাটতি দাঁড়াবে ৬.৮ শতাংশ। ২০২০-২০২১ সালে আর্থিক ঘাটতি ধরা হয়েছে ৯.৫ শতাংশ। ঘটাতি নির্দিষ্ট লক্ষ্যে রাখতে আরও ৮০ হাজার কোটি টাকার দরকার। এই ত্রৈমাসিকের শেষ ২ মাসে এজন্য বাজার থেকে ঋণ নেওয়া হবে। 

এছাড়া, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য ১৫,৭০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। গতবছরের বরাদ্দের তুলনায় তা দ্বিগুণ। স্ট্যান্ড আপ ইন্ডিয়া প্রকল্পে তফশিলি জাতি-উপজাতির মানুষের জন্য ঋণের মার্জিন মানি ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। 

আয়করে ছাড় নেই, কৃষি সেস পেট্রোল-ডিজেলে 

সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা অপূর্ণ রেখেই কোনও পরিবর্তন হল না আয়করের। করোনা অতিমারির পর মধ্যবিত্তরা আশা করেছিলেন তাঁরা আয়করে কিছুটা ছাড় পাবেন। কিন্তু বাজেট ভাষণে তেমন কিছুই বলেননি নির্মলা সীতারমন। তবে এরইসঙ্গে সরকার পেট্রলের ওপর লিটারে আড়াই টাকা, ডিজেলে লিটারে ৪ টাকা কৃষি সেস বসানোর প্রস্তাব দিয়েছেন নির্মলা। ফলে জ্বালানি তেলের দাম আরও বাড়বে। 



Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.