বিজেপিতে ‘মহাগুরু’ মিঠুন?

মিঠুন চক্রবর্তীকে একসময় সিনেমাপ্রেমীরা দাদা বলেই ডাকতো। কিন্তু সৌরভ সেলেব দুনিয়ার পদার্পণ করার পর দাদা ডাকটি ঘুরে যায়। সৌরভই ভারতবাসীর কাছে ‘দাদা’ হয়ে ওঠেন কালক্রমে। অপরদিকে মিঠুনও কলকাতায় আসা ততদিনে অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছিলেন। এরপর টেলিভিশনে একটি রিয়ালিটি শো করে রাতারাতি হয়ে যান ‘মহাগুরু’। মিঠুনের রাজনৈতিক জীবন বর্ণময়।  শোনা যায় কলেজ জীবনে তিনি নকশাল  আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েছিলেন। সমস্যায় জড়িয়ে পড়ার আগেই চলচিত্র স্কুলে যোগ দেন বলে খবর। এরপর অনেক লড়াই করে বলিউডে নিজের জায়গা পোক্ত করেন। কলকাতায় সঙ্গে তাঁর বরাবরই নাড়ির টান ছিল, সেটাই বাড়ে সিপিএম মন্ত্রী সুভাষ চক্রবর্তীর ঘনিষ্ঠ হয়ে। সবাই ধরে নিয়েছিল তিনি সিপিএম থেকে রাজ্যসভায় যাবেন কিন্তু অনিল বিশ্বাসরা বিষয়টিতে ছেদ টানেন।


ফলে মিঠুন ব্যস্ত হয়ে পড়েন সিনেমা জগতেই। বয়স বাড়লে নায়কের রোল ছেড়ে চরিত্রাভিনয়ে দেখা যেতে থাকল মিঠুনকে। তৃণমূল আমলে মুখ্যমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ তালিকায় তাঁর নাম চলে আসে। তিনি অবশেষে তৃণমূলের রাজ্যসভার সদস্য হন, কিন্তু চিটফান্ড কাণ্ডের  ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন। তিনি  বিরক্তি প্রকাশ করে রাজ্যসভায় পদত্যাগ করে চলে যান বেঙ্গালুরুতে। এরপর নিজের ব্যবসায়ে মন দিয়েছিলেন। সম্প্রতি নাকি বিজেপির সাথে তাঁর ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে। সম্প্রতি তাঁর বাড়িতে আমন্ত্রিত হয়ে আসেন আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবত। তারপরই জল্পনা বাড়ে। এবারে শহরের মস্ত জল্পনা মিঠুন বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন এবং নরেন্দ্র মোদির ব্রিগেড সভায় যোগ দিতে পারেন। কি হবে পরের কথা, তবে ৭ মার্চ মানুষের লক্ষ্য থাকবে ব্রিগেডে মহাগুরুকে খোঁজার জন্য।                          
 

Post a Comment

0 Comments
* Please Don't Spam Here. All the Comments are Reviewed by Admin.